How to use “CC” and “BCC” in mail/Gmail/yahoo mail/outlook/live…

ইমেইল কিভাবে পাঠাবেন এই নিয়ে অনেকেই অনেক দ্বীধা দ্বন্দে থাকেন। কোন জায়গায় কি কি লিখবেন আর ইমেইলের পাশে সিসি (CC) বিসিসি (BCC) এগুলোই বা কি এবং কিভাবে ব্যবহার করতে হয় এবং কেনইবা ব্যবহার করা হয় আর কোন কোন সময় ব্যবহার করা হয়না তা নিয়ে এ ভিডিওতে আলোচনা করা হয়েছে।  To: যাকে বা যাদের মেইল পাঠাতে হবে তাদের ইমেইল এড্রেস এ ঘরে লিখতে হবে। ইমেইল এড্রেস লেখার সময় অবশ্যই পুরো ইমেইল এড্রেস লিখতে হয় এবং কোন প্রকার ভুল করা যাবে না। একটি ইমেইল এড্রেস লেখার পর আরোও ইমেইল লেখার প্রয়োজন হলে কমা দিয়ে আরেকটি ইমেইল এড্রেস লিখতে হবে। তবে এক্সেলের সেলে আলাদা করে ইমেইল এড্রেস লেখা থাকলে সব গুলো কপি করে To এর ফিল্ডে পেস্ট করলে সব লেখা হয়ে যাবে এক্ষেত্রে আলাদা করে লিখতে হবে না। একবার এড্রেস লিখে রাখলে বারবার ব্যবহার করা যাবে।

    কিভাবে CC ব্যবহার করা হয়।  (How to use cc)
CC: কার্বন কপির আরেক নাম হল সিসি। অর্থাৎ চিঠি একটাই লেখা হয় এবং যদি সেটার কপি অনেকের কাছে পাঠতে হয় তখন CC-তে রাখা হয়। সিসিতে যাদের এড্রেস লিখবেন তারা দেখতে পাবে To তে কাদের কাদের মেইল করা হয়েছে ঠিক একই ভাবে To তে যাদের মেইল করা হয়েছে তারাও দেখবে যে সিসিতে কাদের কাদের একই মেইলটা পাঠানো হয়েছে। 

কেন সিসি করা হয়? (Why use cc)


যাদের মেইল করা হয় তারা সে মেইল পেয়েও অস্বীকার করতে পারে তাই কাউকে মেইল করার সময় সিসি করে রাখা হয় কোন উর্ধতন কর্মকর্তাকে।

কেন বিসিসি করা হয় (Why use bcc)বিসিসি:
সিসির আরেক নাম হল বিসিসি। বিসিসিতে যাদের মেইল করা হয় তারা দেখতে পারে কাদের কাদের মেইল ও সিসি করা হয়েছে তাবে CC এবং To তে যাদের মেইল করা হয়েছে তারা জানতে পারেনা একই মেইল বিসিসিতে অন্য কাউকে পাঠানো হয়েছে।

তথ্যটি শেয়ার করুন

Leave a Comment

Welcome...
Have you face any kind of problem just comment.