মানুষ, শহর এবং পানি

শহর একটি আধুনিক বসবাসের স্থান, এখানে সব পরিকল্পনা করে সাজাতে হয়। কোন কিছু এলোমেলো হলে খেসারত দিতে হয় শহরের সবাইকে। শহরে সব কিছু সহজেই পাওয়া গেলেও প্রাকৃতিক কোন কিছুই খুব সহজে পাওয়া খুবই কষ্টকর। কোন সীমাবদ্ধ স্থানে কিছু সময়ের জন্য থাকা গেলেও নির্দিষ্ট সময়ের ভিতর বের হয়ে আসতে হয় নতুবা দেখা যায় সবই আর্টিফিশিয়াল।
 

 
পানি। পানির অপর নাম জীবন। যদিও তার সাথে আরে কিছু আছে। যেমন বিশুদ্ধ বাতাস, আর পানি অবশ্যই বিশুদ্ধ হতে হবে।  পানি ময়লা বা দূষিত করা খবই সহজ। প্রাকৃতিক ভাবে পানি দূষিত হলেও প্রকৃতির রয়েছে বিশাল ফিল্টার। যেমন সে তাপের মাধ্যমে পানিকে বাষ্পে পরিনত করে বিষুদ্ধ বৃষ্টি দেয়, আবার মাটির স্তরে স্তরে ফিল্টারের মাধ্যমে মাটির নিচে বিশুদ্ধ পানি জমা রাখে।
তবে শহরের পানি বিশুদ্ধ করা ক্ষমতা নেই। বিশেষ করে অপরিকল্পিত শহরে এদমই নেই। এর জন্য তাদের দূষিত পানে শহর থেকে বের করে শহরের বাহিরে চলে যাবার ব্যবস্থা করতে হয়।

উপরের ছবির মত প্রথমে ছোট করে (৩ ফুটে ব্যাস) ব্যবস্থা ১০ পরে পর এটা উঠিয়ে ১০ ফুট ব্যাসের ডেন করে যে শহরে উন্নয়নের রোল মডেল করে গড়ে!! তোলা হয় সে শহরে না সরানো যায় পানি আর ফিল্টার হবার প্রকৃয়াতো অনেক আগেই শেষ।

 

এসব শহরের সাথে কিডনি ফেইল রোগির সাথে তুলনা করা যায়। এসব রোগিরা যেমন শরীর থেকে দূষিত পানি ফেলতে পারে না এবং তা পুরো শরীর জুড়ে অবস্থান করে রোগিকে কষ্ট দেয়, ঠিক তেমনি করে অপরিকল্পিত নগরী থেকে দূষীত পানি বের করা সম্ভব হয় না বলে তার বাসিন্দাদের অপুরনীয় কষ্ট সহ্য করতে হয়।

তথ্যটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Welcome...
Have you face any kind of problem just comment.