হাসপাতাল মর্গের সামনে কিছুক্ষণ

যখন এখানে এসেছিলাম আমার সাথে অল্প কয়েকজন ছিলো তারা বলছিলো কিছু হবে না, কিন্তু তারা এখন আমাকে এখান থেকে নিয়ে যেতে অনেকেই এসেছে আর একটা খুব পরিচিত দোয়া পাঠ করছে। অনেকেই কান্নায় ভেঙ্গে যাচ্ছে, তাদের কন্ঠস্বর চেনা যাচ্ছে কিন্ত কে বা কারা মনে করতে পারছিনা, বলতে পাছিনা তোমরা থাম আমার কেমন যেন লাগছে দয়া করে চুপ থাকেবে।। 
আমার অনেক ঘুম পাচ্ছে কিন্ত এত কোলাহলের মাঝে ঘুমাই কি করে! আমাকে আবার সে রকম একটা গাড়িতে নেয়া হল, আসার সময় আমি গাড়িতে উঠেছিলাম কিন্ত এবার আমাকে বেশ কয়েকজন খুবই যত্ন সহকারে গাড়ীতে ওঠালো। সেবার আমি বসে ছিলাম এবার বসতে পারছিনা কিছু বলতেও পারছিনা।
তারা সবাই নিজেরা নিজেরা কথা বলছে আমার সাথে কেউ কথা বলছে না কেন! কিছুদিন আগেও সবাই আগে আমার সাথে কথা বলত!
খুবইঠান্ডা লাগছিলো সারা শরিরে কাপড় দিয়ে ঢাকার কারনে ঠান্ডা লাগছেনা তবে পায়ের দিকে কোন সেন্স পাচ্ছিলাম না, আসলে পুরো শরিরের কোথাও আমার নিয়ন্ত্রন নেই শুধু শুনতে পাচ্ছি যা ক্রমেই কমে আসছে আর ভাবতে পাচ্ছি ভাবনা গুলোও কেমন যেন হারিয়ে যাচ্ছে, আর আমি হারিয়ে যাচ্ছি কোন এক অজানায়।
তথ্যটি শেয়ার করুন

Leave a Comment

Welcome...
Have you face any kind of problem just comment.