মেসে রুমমেট প্রয়োজন এবং বাড়ী ওয়ালার দরকার ভাড়াটিয়া। তবে রুমমেট যদি কোন অঘটন ঘটিয়ে যায় তাকে সহজে খুজে বের করা মুশকিল তেমনি কোন ভাড়াটিয়া কোন অঘটন ঘটিয়ে চলে গেলে তাকে খুজে পাওয়া মুশকিল।

তাই মেসে রুমমেট নেবার আগে (রুমে ওঠার আগে) যে সব বিষয় অবশ্যই মানতে হবে তা হলঃ

১। রুমমেটের বয়স ২০ বা তার বেশি হলে অবশ্যই জাতীয় পরিচয় পত্র এর ফটোকপি, ফটোকপিতে লিখে দিতে হবে কোন বিল্ডিংকে কোন তলায় কোন রুমে রুমমেট হিসেবে উঠছে এবং আইডি কার্ডের মত করে সাইন নিতে হবে সাথে তারিখ। এবং অবশ্যই মূল আইডি দেখাতে হবে এবং অনলাইনে ভেরিফাই করে নিতে হবে।
 আইডি কার্ড না থাকলে জন্মনিবন্ধন এর ফটোকপি মূলকপি দেখে যাচাই করে নিতে হবে সাথে চেয়ারম্যন পরিচয় পত্র নিতে হবে।
২। তার দুটি মোবাইল নাম্বার নিতে হবে।
৩। ২ জন আত্তিয়ের মোবাইল নাম্বার নিতে হবে, এবং ভেরিফাই করতে হবে এবং তাদের ঠিকানা জেনে নিতে হবে।
৪। ছাত্র হলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আইডি চাকুরীজীবি হলে প্রতিষ্ঠানের আইডির কপি নিতে হবে।
৫। পাসপোর্ট সাইজের ছবি নিতে হবে,  এবং মোবাইলে রুমমেটের ছবি তুলে রাখতে হবে।
৬। এডভান্স ১মাসের ভাড়া রাখতে হবে।

ভাড়াটিয়া নেবার ক্ষেত্রে।

১। পরিবারের অভিবাকের আইডি কার্ড, প্রতিষ্ঠানের আইডি কাড/ব্যবসা হলে ট্রেড লাইসেন্সের কপি, পাসপোর্ট সাইজের ছবি এবং সরাসরি তোলা ছবি রাখতে হবে। তবে সন্দেহ হলে সবার আইডির কপি রাখা যাবে।

ভাড়া বা রুমমেট নেবার পর।

মাসে  একাধিক বার সবার বাসায় গিয়ে দেখতে হবে সন্দেহজনক কোন কর্মকান্ড কেউ করছে কি/না। এক্ষেত্রে বাড়িওয়ালা একা না গিয়ে সাথে কাউকে দিয়ে চেক করলে ভালো হয়। তবে শুধুই চোখের দেখা দেখতে হবে কোনভাবেই যেন ভাড়াটিয়াদের প্রাইভেসির উপর আঘাত হানে এমন ভাবে চেক করা যাবে না। শুধু খোজ খবর নেবার জন্য যেভাবে যাওয়া যায় শুধুই সেভাবে।

রুমেমেট হয়ে আসা ব্যক্তির করণীয়

যেহেতু রুম ছেড়ে আসছেন তাই একটি সাদা কাগজে কোন প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটিয়ে রুম ছেড়েছেন তার একটি ছাড়পত্র লিখে রুমমেটদের কাছ থেকে সাইন নিয়ে আসা। যদি এমন মনে হয় যে তারা সাইন দিবে না তাহলে চলে আসার সময় সকল কথাবার্তা রেকর্ড করে নিয়ে আসবেন নিজের সেফটির জন্য। কারণ তারা যদি কোন মিথ্যা অপবাদ দেয় তাহলে ছাড়পত্র বা রেকর্ড আপনার পক্ষে কথা বলবে।

তথ্যটি শেয়ার করুন
No comments