বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সাত্তার সাহেবের সাথে দেখা হল।
প্রথম দেখাতে ভেবেছিলাম ফটোগ্রাফারের সহকারি। কারন, তিনি অনেক ক্লান্ত মনে হল। যিনি সারা পৃথিবী গাড়ীতে ভ্রমন করবেন তিনি ক্লান্ত! আমি আসলে ভুল করেছি, আমি তার সম্পর্কে যা ভাবছিলাম তা পুরটাই ভুল।
কানাডা প্রবাসী এই মুক্তিযোদ্ধা বাংলাদেশে এসেছেন ২০১০ সালে। তার গাড়ি আটকে দিয়েছে শুল্ক কর্মকর্তারা। বাংলাদেশে উনার যে পরিমাণ সম্পত্তি ছিল তার সবই তিনি ব্যায় করেছে গাড়িটা ছাড়ানোর জন্য। কোন আর্থক সাহায্য চাননি তিনি কারো কাছে। চেয়েছেন দেশটাকে নতুন করে তুলে ধরতে।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীরা স্বারকলিপি দিয়ে জানিয়েছেন আমাদের সম্মানিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কে।
১৭-০৬-২০১৫ তারিখে
তিনি তখন আমাকে তার আশার কথা জানালেন দ্রুতই মুক্তি পাবে তার গাড়িটি।
আমরা দোয়া করব আমাদের দেশটার জন্য, দেশের মানুষের জন্য, এই মুক্তিযোদ্ধার জন্য যিনি দেশটাকে নতুন করে তুলে ধরতে চেয়েছেন বিশ্বের কাছে।
আমিন।

তথ্যটি শেয়ার করুন
No comments